বড়হাটে প্রচুর বিস্ফোরক, অভিযানে সময় লাগবে: মনিরুল | daily-sun.com

বড়হাটে প্রচুর বিস্ফোরক, অভিযানে সময় লাগবে: মনিরুল

ডেইলি সান অনলাইন     ৩১ মার্চ, ২০১৭ ১২:৫৩ টাprinter

বড়হাটে প্রচুর বিস্ফোরক, অভিযানে সময় লাগবে: মনিরুল

 

মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাটের জঙ্গি আস্তানায় পরিচালিত ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ শেষ হতে সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেন, বড়হাটের আস্তানায় প্রচুর বিস্ফোরক রয়েছে।

আর এর আশপাশে অনেক উঁচু ভবন রয়েছে। ফলে ‘অপারেশন ম্যাক্সিমাস’ শেষ হতে সময় লাগবে।   


শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে ঘটনাস্থলে এক ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সার্বিক পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তবে জঙ্গি আস্তানার পার্শ্ববর্তী সিলেট-মৌলভীবাজার আঞ্চলিক মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।  


সোয়াত ও বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দলের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর শুক্রবার সাড়ে ৯টার দিকে অভিযান শুরু করে সোয়াত। এরপর থেকে ওই এলাকায় থেমে থেমে গুলির শব্দ পাওয়া যাচ্ছে। এর আগে ভোর থেকে আবু শাহ (রহ.) দাখিল মাদ্রাসার পার্শ্ববর্তী জঙ্গি আস্তানা ঘিরে রাখে র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা।


উল্লেখ্য, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাত থেকে মৌলভীবাজার পৌরসভার বড়হাট এলাকায় একটি বাড়ি এবং খলিলপুর ইউনিয়নের সরকার বাজার এলাকার নাসিরপুর গ্রামের একটি বাড়ি ঘিরে রাখে পুলিশ ও সিটিটিসি।

বুধবার সন্ধ্যায় নাসিরপুরের আস্তানায় ‘অপরাশেন হিটব্যাক’ শুরু করে সোয়াট। পরে আলোর স্বল্পতার কারণে রাতে অভিযান স্থগিত রাখা হয়। বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) সকাল ১০টার পরে আবার অভিযান শুরু করে সোয়াট। বিকালে শেষ হয় ‘অপরাশেন হিটব্যাক’। এই অভিযানে এক পুরুষ, দুই নারী ও চার শিশু মারা যায় বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

 


Top