ভারতে কেএফসি-সহ ৫০০টি মাংসের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে শিবসেনা | daily-sun.com

ভারতে কেএফসি-সহ ৫০০টি মাংসের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে শিবসেনা

ডেইলি সান অনলাইন     ৩০ মার্চ, ২০১৭ ০০:৩১ টাprinter

ভারতে কেএফসি-সহ ৫০০টি মাংসের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে শিবসেনা

ভারতের কট্টরবাদী শিবসেনা নবরাত্রি উৎসবের সময় সব মাংসের দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ জারি করেছে এবং সেই সাথে পালাম বিহারের গুরুগ্রাম এলাকার প্রায় ৫০০টি মাংসের দোকান জোর করে বন্ধ করে দিয়েছে।

 

বন্ধ করে দেওয়া দোকানের মধ্যে কেএফসি-র আউটলেটও রয়েছে। ওল্ড গুরুগ্রাম এলাকাতেই মূলত মাংসের দোকানগুলি বন্ধ করা হয়েছে। প্রায় ২০০ শিব সৈনিক দোকানে দোকানে গিয়ে সেগুলি বন্ধ করতে বাধ্য করেছে বলে খবর রায়েছে।

 

শুধু নবরাত্রির নয়দিন নয়, এর পর থেকে প্রতি মঙ্গলবার মাংসের দোকান বন্ধ রাখতে হবে বলেও ব্যবসায়ীদের হুমকি দিয়েছে শিবসেনা।

 

শিবসেনার নেতারা মাংসের দোকান বন্ধের নির্দেশের কথা প্রকাশ্যেই স্বীকার করছেন।

 

গুরুগ্রাম শিবসেনার সভাপতি গৌতম সাইনি বলেন, “মাংসের দোকানের মালিকদের এবং কেএফসি-সহ অন্যান্য ফাস্ট ফুডের দোকানগুলিকে আমরা নোটিস দিয়েছি। নবরাত্রি শেষ না হওয়া পর্যন্ত দোকান বন্ধ রাখতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছি।’ নবরাত্রি শেষ হওয়ার পর প্রতি মঙ্গলবার দোকানগুলো বন্ধ রাখতেও মালিকদের নির্দেশ দিয়েছে শিবসেনা।

 

দোকন বন্ধ করার ঘটনা স্বীকার করে গুরুগ্রাম পুলিশের এসিপি (পিআরও) মণীশ সেহগল বলেন,  কয়েকটি মাংসের দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু পরে সেগুলি খুলে দেওয়া হয়েছে। ওই দোকানগুলি বৈধ লাইসেন্স নিয়েই চলছে বলে এসিপি জানিয়েছেন। জোর করে দোকান বন্ধ করার খবর পেলে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

 

ভারতের বিভিন্ন এলাকাতেই নবরাত্রি উৎসব ধুমধামের সঙ্গে পালিত হয়। উত্তর ভারতের বিস্তীর্ণ এলাকায় চৈত্র মাসের এই নয়দিন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা দিনের বেলায় উপবাস করেন। এই নয়দিনে তারা আমিষ খাবারও খান না।


Top