‘গেট আউট ফ্রম মাই কান্ট্রি’, বলেই ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারকে গুলি | daily-sun.com

‘গেট আউট ফ্রম মাই কান্ট্রি’, বলেই ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারকে গুলি

ডেইলি সান অনলাইন     ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ১৫:৫৪ টাprinter

‘গেট আউট ফ্রম মাই কান্ট্রি’, বলেই ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারকে গুলি

 

মঙ্গলবারই মার্কিন মুলুকে বসবাসকারী অবৈধ বিদেশিদের বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেছে হোমল্যান্ড সিকিউরিটি। নির্দেশিকায় পরিষ্কার জানানো হয়েছে— যে সব বিদেশির কাছে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থাকবে না, তাদের গ্রেফতার করা হবে এবং মার্কিন মুলুক থেকে থেকে বিতাড়িত হতে হব।

 

 

হোমল্যান্ড সিকিউরিটি-র এই ঘোষণার পর থেকে বিদেশিদের উপর বেশকিছু হামলা এবং হুমকির ঘটনা ঘটছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার এমনই এক ঘটনা ঘটল, যাতে প্রাণ হারাতে হল এক ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ারকে। 

 

বৃহস্পতিবার কাজের শেষে কানসাসের ওলাথেতে অস্টিন বার অ্যান্ড গ্রিল নামে এক রেস্তোরাঁয় গিয়েছিলেন শ্রীনিবাস কুছিভোটলা এবং তাঁর আর এক ভারতীয় বন্ধু তথা সহকর্মী অলোক মাদাসানি। আচমকাই রিভলবার বাগিয়ে বসে মার্কিন নৌসেনার প্রাক্তন কর্মী বছর বাহান্নর অ্যাডাম পুরিনটোন।

 

‘গেট আউট ফ্রম মাই কান্ট্রি’ বলেই শ্রীনিবাস কুছিভোটলা এবং অলোক মাদাসানিকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় পুরিনটোন। একই সময়ে ওই রেস্তোরাঁয় ঢুকেছিলেন বছর ২৪-এর মার্কিন যুবক ইয়ান গ্রিল্লট। তিনি ঝাঁপিয়ে পড়ে পুরিনটোনকে নিরস্ত্র করার চেষ্টা করেন।  

 

                                                                অলোক মাদাসানি

 

গ্রিল্লটের সঙ্গে ধস্তাধস্তির সময়ে পুরিনটোন ফের গুলি চালায়। গুলিতে হাত ও বুকে আঘাত পান গ্রিল্লট। গুলিতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শ্রীনিবাস কুছিভোটলার। অলোক মাদাসানি এবং ইয়ান গ্রিল্লট-এর এখন বিপন্মুক্ত বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে। 

 

 

জানা গিয়েছে, বছর বত্রিশের শ্রীনিবাস কুছিভোটলা জারমিন বলে একটি মার্কিন সংস্থায় অ্যাভিয়েশন সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কাজ করতেন। তাঁর সঙ্গে থাকা এবং ঘটনায় জখম হওয়া আর এক ভারতীয় বছর বত্রিশের অলোক মাদাসানিও জারমিনে কাজ করেন। জওহরলাল নেহরু টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি লাভের পরে ২০০৫ সালে শ্রীনিবাস টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের এল পাসো ক্যাম্পাসে মাস্টার্স ডিগ্রিও লাভ করেছিলেন। শ্রীনিবাসের স্ত্রী সুনয়না ধুমালাও একটি মার্কিন প্রযুক্তি সংস্থায় কাজ করেন।    

 

কানসাসের ওলাথে পুলিশ ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত অ্যাডাম পুরিনটোনকে গ্রেফতার করেছে। গোটা ঘটনাকেই অত্যন্ত মর্মান্তিক এবং দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন ওলাথে পুলিশ প্রধান। 

 

বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ মৃত ও আহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে টুইটও করেছেন এবং সব ধরনের সাহায্যের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তিনি। শ্রীনিবাস ও অলোকের সংস্থা জারমিন-ও বিবৃতি দিয়ে ঘটনার নিন্দা করেছে। সেইসঙ্গে মৃত ও আহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানিয়েছে।

 

 

 


Top