‘সানির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনায় বিসিবি খুবই বিব্রত’ | daily-sun.com

‘সানির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনায় বিসিবি খুবই বিব্রত’

ডেইলি সান অনলাইন     ২৩ জানুয়ারী, ২০১৭ ১৮:০২ টাprinter

‘সানির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনায় বিসিবি খুবই বিব্রত’

-বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন

 

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় রিমান্ডে থাকা আরাফাত সানি দোষী প্রামাণিত হলে ক্রিকেট বোর্ড তার পাশে থাকবে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। সোমবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বাংলাদেশ ক্রিকেটের এ শীর্ষ কর্মকর্তা এমন মন্তব্য করেন।


নিজামউদ্দিন বলেন, আরাফাত সানির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনায় বিসিবি খুবই বিব্রত। বিষয়টি আমরা পর্যবেক্ষণ করছি। মামলায় দোষী প্রমাণিত হলে সানির পাশে বোর্ড থাকবে না বলে সাফ জানিয়ে দেন তিনি।


এর আগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় রোববার ভোরে সানির নিজ বাড়ি সাভারের আমিন বাজার থেকে তাকে গ্রেফতার করে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। পরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইয়াহিয়া ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। পরে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম প্রণব কুমার হুইয়ে সানির একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।


রিমান্ডে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানি। একই সঙ্গে অভিযোগকারিণী তরুণীকে বিয়ের কথাও অস্বীকার করেছেন তিনি।

এ ছাড়া আপত্তিকর কোনো ছবি মেসেঞ্জারে পাঠিয়ে ব্ল্যাকমেইলের কথা উড়িয়ে দিয়েছেন এই স্পিনার। পাল্টাপাল্টি বক্তব্যের পর ঘটনাটি নিয়ে জোর তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।


আরাফাত সানি ছাড়াও বিপিএল চলাকালীন ব্যাটসম্যান সাব্বির রহমান ও পেসার আল-আমিন হোসেনের বিরুদ্ধে নারীঘটিত কেলেংকারির অভিযোগ ওঠে। শাস্তিস্বরূপ তাদের মোটা অংকের অর্থ জরিমানা করে বিসিবি। এর আগে ২০১৫ বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে পেসার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলা করেন নাজনিন আক্তার হ্যাপি নামে এক অভিনেত্রী। এ মামলায় গ্রেফতারের পর দু’দিন জেলও খাটেন রুবেল। পরে বিসিবির সহায়তায় মুক্তি পান এই পেসার। মামলা তুলে নেন নাজনিন আক্তার হ্যাপি।

 


Top