হেসে খেলেই পাকিস্তানকে হারাল অস্ট্রেলিয়া | daily-sun.com

হেসে খেলেই পাকিস্তানকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

ডেইলি সান অনলাইন     ১৯ জানুয়ারী, ২০১৭ ১৭:১৩ টাprinter

হেসে খেলেই পাকিস্তানকে হারাল অস্ট্রেলিয়া

 

সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে যেন পাত্তাই পেল না পাকিস্তান। দ্বিতীয় ম্যাচে পরাজয়ের পর পার্থে সফরকারীদের হেসেখেলে হারিয়ে দিল স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া।

সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। এছাড়া তরুণ হ্যান্ডসকম্বের ব্যাটিং দৃঢ়তায় ৭ উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া। অজিদের এই জয়ে র‌্যাংকিং নিয়ে আপাতত চিন্তামুক্ত হলো বাংলাদেশ।

 

পার্থের ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন গ্রাউন্ডে টসে জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানায় স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া। ব্যাটিংয়ে নেমে ৩৬ রানেই ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজের (৪) উইকেট হারায় সফরকারীরা। এরপর দলের ইনিংস গড়ার দায়িত্ব নেন শারজিল খান এবং বাবর আজম। শারজিল খান ৪৭ বলে ৮ চার ও ১ ছক্কায় ৫০ রান করে হ্যাজেলউডের বলে হ্যান্সকম্বের হাতে ধরা পড়েন। কিন্তু বাবর আজম এগিয়ে যান আরও অনেকখানি। সেইসঙ্গে গড়েন একটি রেকর্ডও।

 

২১ ইনিংসেই ওয়ানডেতে হাজার রানের মাইলফলক পার করে কিংবদন্তি স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডসকে স্পর্শ করেন বাবর আজম। পার্থে এদিন সেঞ্চুরির আক্ষেপ থাকলেও ১০০ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং ১ ওভার বাউন্ডারিতে ৮৪ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন বাবর। অবশ্য ব্যক্তিগত ৪৭ রানের সময় তিনি এই রেকর্ড গড়েন। একটা সময় বড় রানের দিকেই যাচ্ছিল সফরকারীরা। কিন্তু শেষ দিকে দ্রুত উইকেট পতন এবং রান না নিতে পারার ফলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৬৩ রান করে পাকিস্তান।

 

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দলকে উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার এবং উসমান খাজা। জুটিতে ৪৪ রান আসতেই একটি ছোট্ট ধস নামে। ১ রানের ব্যবধানে ফিরে যান দুই ওপেনার। ওয়ার্নার ৩৮ বলে ৩৫ এবং খাজা ২০ বলে ৯ রান করেন। এরপরই দলের হাল ধরেন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এবং তরুণ ব্যাটসম্যান পিটার হ্যান্ডসকম্ব। তৃতীয় উইকেটে দুজনে মিলে ১৮৩ রানের জুটি গড়েন। জয় থেকে অল্প দূরে থাকতে দলীয় ২২৮ রানে হাসান আলীর বলে কিপার রিজওয়ানের হাতে ধরা পড়েন হ্যান্ডসকম্ব। তিনি  ৮৪ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৮২ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন।

 

এর মাঝেই ৯৭ বলে ১০ বাউন্ডারি এবং ১টি ওভার বাউন্ডারিতে তিন অংকে পৌঁছান স্টিভ স্মিথ। শেষ পর্যন্ত তিনি ১০৮ রানে অপরাজিত থাকেন। ট্রেভিস হেড (২৬*) কে নিয়ে ৫ ওভার হাতে রেখে সহজেই দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান স্টিভ স্মিথ। একই সাথে পান ম্যাচসেরার পুরস্কার।

 

 

 


Top