নগ্ন হয়ে খেলা দেখাই এখানকার ট্র্যাডিশন! | daily-sun.com

নগ্ন হয়ে খেলা দেখাই এখানকার ট্র্যাডিশন!

ডেইলি সান অনলাইন     ২৪ নভেম্বর, ২০১৬ ১৮:২১ টাprinter

নগ্ন হয়ে খেলা দেখাই এখানকার  ট্র্যাডিশন!

 

ইয়েল ও হাভার্ড ইউনিভার্সিটির আলাদা করে পরিচয় দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই। বিশ্বের অন্যতম সেরা দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আভিজাত্যই আলাদা।

শুধু পড়াশোনাই নয়, খেলার ময়দানেও একে অপরকে টেক্কা দেওয়াড় লড়াই চলে লন্ডন ও আমেরিকার এই খ্যাতনামা দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের।

 

এখানকার পড়ুয়া ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘অ্যালামনি’র সদস্যরা ফি-বছর একটি রাগবি ম্যাচে মুখোমুখি হয়৷  শুনলে চমকে যাবেন যে, এই ম্যাচের আগেই বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা নগ্ন হয়ে যান৷এটাই চল্লিশ বছরের ট্র্যাডিশন৷ছাত্র-ছাত্রীরা নগ্ন বা অর্ধনগ্ন হয়েই প্রিয় দলকে তাতায়৷এবারও হাভার্ড স্টেডিয়ামে তার ব্যাতিক্রম হয়নি৷এমনকী পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে৷যদিও ম্যাচটা ইয়েল ২১-১৪ জিতে নেয়৷

 

১১৩ বছরের ৭৪ গজের এই প্রতিদ্বন্দ্বীতা এবারও হতাশ করেনি৷বিনোদন ও খেলা চলল হাতে-হাত ধরেই৷যদিও এর ফলে ম্যাচ শুরু হতে বেশ কিছুটা দেরি হয়৷ ‘সেব্রুক স্ট্রিপ’ বলা হয় নগ্ন হওয়ার এই রীতিকে৷শোনা যায় যে, চল্লিশ বছর আগে কোনও এক ছাত্র বিপক্ষ দলকে খাটো করে দেখানোর জন্যই নিজের প্যান্ট খুলে পশ্চাৎদেশ দেখান৷তারপর থেকেই এটা চলে আসছে৷আনন্দেই সবাই নগ্ন হয়ে থাকেন এই ম্যাচে৷ভাবা যায়, এটাও নাকি খেলারই অঙ্গ! - সূত্র : ওয়েবসাইট

 

 


Top