logo
Update : 2018-10-12 20:09:26
বৃহত্তর ঐক্যের দাবি ও লক্ষ্যের খসড়া চূড়ান্ত, শনিবার ঘোষণা

বৃহত্তর ঐক্যের দাবি ও লক্ষ্যের খসড়া চূড়ান্ত, শনিবার ঘোষণা

বৃহত্তর ঐক্য গঠনের প্রেক্ষাপটে শুক্রবার ফের বৈঠক করেছেন বিএনপি, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ও যুক্তফ্রন্টের নেতারা। উত্তরায় জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রবের বাসায় বিকেল সাড়ে ৩টায় শুরু হয়। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শেষ হয়।   বৈঠক শেষে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না সাংবাদিকদের বলেন, ‘দীর্ঘ সময়ের বৈঠকে যৌক্তিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য একটি অভিন্ন দাবি ও লক্ষ্যের বিষয়ে খসড়া চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামীকাল শনিবার এ বিষয়ে ঘোষণা দেয়া হবে।’   এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিকল্পধারার যুগ্ম-মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী বলেন, ‘জামায়াত ইস্যুতে বিএনপির সঙ্গে কী আলোচনা হয়েছে, সেটাও আগামীকালের (শনিবার) ঘোষণায় স্পষ্ট করা হবে।’   বিএনপির সঙ্গে বৃহত্তর ঐক্য গড়ার ক্ষেত্রে বিকল্পধারার পক্ষ থেকে বরাবর জামায়াতে ইসলামের সঙ্গে জোট ছাড়ার শর্ত দেয়া হয়ে আসছে। তবে বিএনপির ভাষ্য, জামায়াত তাদের আলাদা জোটের শরিক দল। বৃহত্তর ঐক্যে এই ইস্যু কোনো বাধা হতে পারে না। বিএনপির সঙ্গে ঐক্য হবে, জামায়াতের সঙ্গে কারো ঐক্য হবে না।     এ নিয়ে আলোচনা উঠলে সম্প্রতি জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার এক বৈঠকে বিএনপির সঙ্গে আলোচনার দায়িত্ব দেয়া হয় মাহমুদুর রহমান মান্নাকে। অবশ্য সে সময়ই জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া ও যুক্তফ্রন্টের একাংশ জানান, বৃহত্তর ঐক্য গঠনে জামায়াত কোনো সমস্যা না। আসলে অতীত আচরণের কারণে বিকল্পধারার সভাপতি অধ্যাপক ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী ও তার ছেলে মাহী বি. চৌধুরী বিএনপির ওপর আস্থা রাখতে পারছে না।   এরপর বিএনপির নেতাদের সঙ্গে একাধিক বৈঠক করেন মাহমুদুর রহমান মান্নারা। আ স ম আব্দুর রবের বাসার বৈঠক শেষে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের কাছে বলার মতো নতুন কোনো তথ্য নেই। মাহমুদুর রহমান মান্না যা বলেছেন, সেটাই আজকের বক্তব্য। বাকিটা জানার জন্য শনিবার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।’     এই বৈঠকে অংশ নেন, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, সহ-সভাপতি তানিয়া রব, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, নাগরিক ঐক্যের প্রধান সমন্বয়ক শহীদুল্লাহ কায়সার, কেন্দ্রীয় নেতা ডা. জাহিদ।     এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, বিকল্প ধারার যুগ্ম-মহাসচিব মাহী বি চৌধুরী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ প্রমুখ।     এসব নেতারা যখন বৈঠক করেন, আব্দুর রবের বাসার সামনে বিক্ষোভ মিছিল করেন ৩০/৪০ জন। মিছিলটিতে অংশ নেয়া ব্যক্তিরা স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে।