logo
Update : 2017-09-11 18:32:58
মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে মোবাইল ব্যাংকিং- এর লেনদেনের শুভ সূচনা

মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে মোবাইল ব্যাংকিং- এর লেনদেনের শুভ সূচনা

  গতকাল ১০ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ এই প্রথম বারের মতো ৪র্থ প্রজন্মের প্রযুক্তি সম্বলিত এবং সম্পূর্ণ নিরাপদ মোবাইল ব্যাংকিং মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে এর লেনদেনের শুভ সূচনা অনুষ্টিত হয় বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়াম মিঠাপুকুর, রংপুরে।  স্বাগত বক্তব্যে মেঘনা ব্যাংক লিঃ এর প্রধান নির্বাহী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মো: নুরুল আমিন বলেন, বর্তমানে দেশে ৩০ শতাংশ মানুষ ব্যাংকিং সুবিধার আওতায় রয়েছে। ফলে সুবিধার বাইরে থাকা প্রায় ৭০ ভাগ মানুষকে ব্যাংকিং সেবার আওতায় আনতে মোবাইল ব্যাংকিং একটি বড় ধরণের ভূমিকা রাখতে পারে।  সূচনা বক্তব্যে মোবিলিটি আই ট্যাপ পে (বাংলাদেশ) লিমিটেড এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ড. কামরুল আহসান বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে প্রতিদিন ৭৬০ কোটি টাকার লেনদেন হচ্ছে। বর্তমানে দেশের প্রায় ৪৫ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক জনগন ব্যাংকিং সেবার বাইরে এবং তাদেরকে ব্যাংকিং সেবার আওতায় আনার জন্যই মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে- এর আগমন। শুধুমাত্র ব্যাংকিং সেবার বাইরে যে সমস্ত জনগণ রয়েছে তাদেরকে এই সেবায় অর্ন্তভুক্ত করেই ট্যাপ এন পে থেমে যাবেনা, লক্ষ এজেন্ট তৈরির মাধ্যমে সৃষ্টি হবে ক্ষুদ্র ও মাঝারী উদ্যোক্তা তৈরির সূতিকাগার যার অধিকাংশই প্রতিনিধিত্ব করবে নারীরা। আমাদের নতুন দর্শন হবে দ্বৈত উপার্জন। শুভেচ্ছা বক্তব্যে মোবিলিটি আই ট্যাপ পে (বাংলাদেশ) লিমিটেড এর চেয়ারম্যান ড. মো: জহির উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, ২০১০ সালে বাংলাদেশ ব্যাংক মোবাইল ব্যাংকিংয়ের নীতিমালা প্রণয়ন করে বাংলাদেশে মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস প্রদানে আর্থিক অন্তভুক্তির দুয়ার খুলে দিয়েছে। এতে করে জনসেবার পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনীতির গতিশীলতা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি আরও বলেন, মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে- এর সহায়তায় নিরাপদ এবং দ্রুত আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে চলমান অর্থনৈতিক গতিশীলতা আরও ত্বরান্বিত হবে।   প্রধান অতিথি মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জনাব জুনাইদ আহ্মেদ পলক এমপি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রে মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে একটি উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে। তিনি বলেন মোবাইল ফাইনেন্সিয়াল সার্ভিসেস বা মোবাইল ব্যাংকিং এমন একটি মাধ্যম যা ব্যাংকিং ব্যবস্থার বাইরে থাকা বিশাল জনগোষ্ঠীকে ব্যাংকিং সেবা দিতে সক্ষম হয়েছে স্বল্প খরচে এবং ব্যাংক ব্রাঞ্চ ছাড়াই। মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে প্রি পেইড কার্ড সম্বলিত একটি অত্যাধিক নিরাপদ মোবাইল ফাইনেন্সিয়াল সার্ভিসেস, যা বাংলাদেশে চিপ বেইস্ড এনএফসি কার্ড সম্বলিত মোবাইল ব্যাংকিং এর পথিকৃৎ বলে তিনি উল্লেখ করেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন ও সমাপনী বক্তব্যে মেঘনা ব্যাংক লিঃ এর চেয়ারম্যান জনাব এইচ এন আশিকুর রহমান এমপি বলেন, মেঘনা ব্যাংক ট্যাপ এন পে সার্ভিস বাংলাদেশে মোবাইল ব্যাংকিং এ প্রচলিত গতানুগতিক পদ্ধতি হতে সম্পূর্ণ ভিন্ন এবং এই মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস দেশে একটি মাইলফলক হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হলো।    উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মেঘনা ব্যাংক লিঃ এর উদ্যোক্তা জনাব রাশেক রহমান, রিটেইল এসএমই এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক বিষয় বিভাগীয় প্রধান জনাব মোহাম্মদ ইমদাদুল ইসলাম, এন্টি মানি লন্ডারিং ও কর্পোরেট এ্যাফেয়ার্স বিভাগের প্রধান জনাব মজিবর রহমান খান, কার্ড ও এডিসি প্রধান জনাব আহসানউল্লাহ নিপু, মোবিলিটি আই ট্যাপ পে (বাংলাদেশ) লিঃ এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রফেসর ড. মো: শাহীন হোসেন, পরিচালক লে. কর্ণেল এম এ লতিফ খান (অব), পরিচালক জনাবা কাইকো তানিদা, সেলস ও মার্কেটিং বিভাগের প্রধান জনাব মো: আবুল হোসেন (ইমন), মানব সম্পদ ও প্রশাসন বিভাগের প্রধান কর্ণেল মো: এনায়েত করিম (অব), মোবিলিটি ওয়ান মালয়েশিয়ার প্রধান নির্বাহী জনাব দাতো’ হুসিয়ান এ রহমান; এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. নাজমুল আহসান কলিমুল্লাহ, বিভাগীয় কমিশনার (রংপুর) জনাব কাজী হাসান আহমেদ, ডিআইজি, বাংলাদেশ পুলিশ (রংপুর রেঞ্জ) জনাব খন্দকার গোলাম ফারুক বি.পি.এম পি.পি.এম মনোরম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের শেষে মেঘনা ব্যাংক লিঃ এবং মোবিলিটি আই ট্যাপ পে (বাংলাদেশ) লিমিটেড- এর ব্যবস্থাপনা পরিষদ উপস্থিত অতিথিবৃন্দকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং সেই সঙ্গে অনুষ্ঠানের পরিসমাপ্তি ঘটে।